1. : admin :
শেরপুর ইউনিয়ন প্রবাসী ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে বাবুল মিয়ার স্বপ্ন পূরণ - দৈনিক আমার সময়

শেরপুর ইউনিয়ন প্রবাসী ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে বাবুল মিয়ার স্বপ্ন পূরণ

অনলাইন ডেস্ক
    প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ৩০ মার্চ, ২০২৩
ফরিদ মিয়া নান্দাইলঃ
ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার বৃহৎ সেচ্ছাসেবী সংগঠন শেরপুর ইউনিয়ন প্রবাসী ঐক্যপরিষদ কর্তৃক শেরপুর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের  ইলাশপুর গ্রামের মৃত হাসেন আলী মেম্বারের পুত্র হতদরিদ্র বাবুল মিয়ার স্বপ্ন পূরণে একটি ঘর নির্মাণ করে দেওয়া হয়। হতদরিদ্র বাবুল মিয়ার পুরাতন বসত ঘরটির চাল সহ সবকিছু নষ্ট হয়ে গিয়ে থাকার অনুপযোগী হয়ে পড়লে বৃষ্টি আসলে বাচ্চাদের নিয়ে কষ্ট করে বসে থাকতে হতো, কিন্তু বাবুল মিয়ার অল্প আয়ের উপর ভিত্তি করে নিজের পরিবারের ৪ সদস্যের খরচ বহন করে নিজের ঘর বাধাটা স্বপ্নের মত মতো হতো। পরে বিষয়টি বাবলু মিয়া শেরপুর ইউনিয়ন প্রবাসী ঐক্য পরিষদের সদস্যদের জানালে ঐক্য পরিষদের সদস্যগণ মিলে তার ঘর বাধার ব্যবস্থা করে দিয়ে বাবুল মিয়ার পরিবারের মুখে হাসি ফোটান।
বেশ কয়দিন আগে থেকেই ঘরের কাজশুরু করে সবকিছু শেষ হওয়ার পর বৃহস্পতিবার (৩০মার্চ) সকালে ১০ ঘটিকায় শেরপুর ইউনিয়ন প্রবাসী ঐক্য পরিষদের একটি টীম গিয়ে বাবুল মিয়ার হাতে ঘর আনুষ্ঠানিক ভাবে বুঝিয়ে দেন।
এ সময় ঐক্য পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফরিদ আহম্মেদ সরকারের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন, উপদেষ্টা সাইফুল ইসলাম সরকার, হারুন-অর-রশিদ সরকার, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক নূর হোসেন হীরা, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক হাফিজুল ইসলাম আকন্দ, সদস্য সুজন মিয়া,জুয়েল ফকির, আল-আমিন ফকির, ক্রিড়া বিষয়ক সম্পাদক এর পিতা নুর ইসলাম সহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ।
ঘর হস্তান্তরের সময় ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফরিদ আহম্মেদ সরকার বলেন, শেরপুর ইউনিয়ন প্রবাসী ঐক্য পরিষদ মানবিকতার এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। আমরা সব সময় হতদরিদ্র পরিবারের পাশে বিভিন্ন ভাবে দাড়ানোর চেষ্টা করি, এরি অংশ হিসাবে আজ বাবুল মিয়ার ঘর নির্মাণ করে দেওয়া হয়। আমি সংগঠনের সকল সদস্যের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।
এ ছাড়াও উপস্থিত সংগঠনের উপদেষ্টা বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সিনিয়র উপদেষ্টা হারুন-অর-রশীদ সরকার ও যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক নূর হোসেন হীরা তাদের বক্তব্যে সকল সদস্যদের ধন্যবাদ জানান।
এ সময় ঘর পাওয়া বাবুল মিয়া তার অনুভূতি প্রকাশ করে বলেন আমি ঘর পেয়ে অনেক খুশি, আমি আমার বাচ্চাদের নিয়ে সুখে থাকতে পারবো। আমি আপনাদের জন্য দোয়া করি।
উল্লেখ্য, শেরপুর ইউনিয়ন প্রবাসী ঐক্য পরিষদের পক্ষ থেকে একই ইউনিয়ন এর আগে আরো দুই হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে দুইটি ঘর নির্মাণ করে দেওয়া হয়।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন
© All rights reserved © dailyamarsomoy.com