1. : admin :
মাছ চুরি মামলায় ছেলেসহ জেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি কারাগারে - দৈনিক আমার সময়

মাছ চুরি মামলায় ছেলেসহ জেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি কারাগারে

অনলাইন ডেস্ক
    প্রকাশিত : বুধবার, ২৯ মার্চ, ২০২৩

রিয়াজুল ইসলাম রিয়াজ,নাটোর 
নাটোরের বাগাতিপাড়ায় পুকুর থেকে দেড় মণ মাছ চুরি, মারপিট ও শ্বাসরোধ করে হত্যা চেষ্টা মামলায় জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ইউনুস আলী ও ছেলে ইফতেখার রহমান সৌরভ (২৮) দ্বয়কে কারাগারে পাঠিয়েছেন আমলি আদালত।
মঙ্গলবার বিকেলে বাগাতিপাড়া আমলি আদালতের বিচারক মোসলেম উদ্দিন তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশদেন তবে, একই মামলায় তার (ইউনুস) স্ত্রী মহিলা আওয়ামী লীগ’র নেত্রী ফরিদা পারভিনকে জামিন দেয়া হয়েছে।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার মাড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও বাগাতিপাড়া ডিগ্্রী কলেজের (অবঃ) সহঃঅধ্যাপক ইউনুস আলীর সাথে প্রতিবেশী মৃত এসএম আবুল কালাম আজাদের পরিবারের ৩৩ শতাংশের একটি পুকুর নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে বিরোধ চলে আসছে। চলতি বছরের ৩ জানুয়ারি সকাল ৭টায় ইউনুস আলী বিবাদমান এই পুকুর থেকে লোকজন নিয়ে আনুমানিক দেড় মন রুই কাতল ও মৃগেল মাছ ধরে বাড়ি নিয়ে যান। বিষয়টি জানতে পেরে মৃত এসএম আবুল কালাম আজাদের স্ত্রী সেলিনা বানু ডেজি, তার মেয়ে সাদিয়া আফরিন, দেবর এসএম হুমায়ুন কবির ও দেবরের স্ত্রী নাজমুন নাহার মিতাসহ অন্যদেরকে নিয়ে প্রতিবাদ জানাতে ইউনুস আলীর বাড়িতে যান। এ সময় ইউনুস আলী (৬৫), তার স্ত্রী জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য ফরিদা পারভীন (৬০) ও তাদের ছেলে তা.থৈ.ই নিত্যকলা একাডেমীর পরিচালক এবং নাটোর পুলিশ লাইন্স স্কুল এন্ড কলেজ’র শিক্ষক ইফতেখার রহমান সৌরভ (২৮) বাদীসহ অন্যদের উপরে হামলা করে মারপিট করে। হামলাকারীরা মারপিট করার পাশাপাশি বাদীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা করে।অভিযুক্ত ইউনুস আলী ও তার ছেলে হামলার সময় বাদীর সোনার চেইন ছিড়ে নেয় এবং পড়নের পোষাক ও চুল ধরে টানা হেচড়া করে শ্লীলতাহানী করে বলেও বাদী মামলায় দাবি করেন। অভিযুক্তরা আদালত থেকে জামিন নিলেও,মঙ্গলবার মামলার নির্ধারিত তারিখে পুনরায় আদালতে হাজিরা দিতে গেলে বিচারক পিতা-পুত্রের জামিন নামঞ্জুর করে তাদের কারাগারে পাঠায়।

মামলার আসামীপক্ষের আইনজীবী সুখময় রায় বিপ্লু জানান, পুকুর নিয়ে বিবাদের জের ধরে অধ্যাপক ইউনুস আলী প্রথমে মামলা করেন। পরে তার কাউন্টার মামলা হিসেবে সেলিনা বানু ডেজি এই মামলাটি দায়ের করেন। বিচারক এই মামলায় জামিনে থাকা অবসরপ্রাপ্ত কলেজ শিক্ষক ইউনুস আলী ও তার ছেলে সঙ্গীত প্রশিক্ষক ইফতেখার রহমান সৌরভকে কারাগারে পাঠিয়েছে। একই মামলায় ইউনুস আলীর স্ত্রীকে জামিন প্রদান করেছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন
© All rights reserved © dailyamarsomoy.com