1. : admin :
ঈদগাঁওতে কবিগুরুর জন্মদিন উদযাপন - দৈনিক আমার সময়

ঈদগাঁওতে কবিগুরুর জন্মদিন উদযাপন

মোঃ রেজাউল করিম, ঈদগাঁও (কক্সবাজার)
    প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ৯ মে, ২০২৩

ঈদগাঁওতে পরম আবেগ ও শ্রদ্ধায় পালিত হয়েছে বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের একশত বাষট্টি তম জন্মবার্ষিকী। ঘটা করে কবিগুরুর জন্মদিন উদযাপন করেছে ঈদগাহ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়। প্রতিষ্ঠানটির মোখতার আহমদ মিলনায়তনে এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সাংস্কৃতিক পরিবেশনায় অংশ নেয় বিদ্যালয়ের ফুলেশ্বরী সাংস্কৃতিক সংসদের শিল্পীরা। অনুষ্ঠানে বক্তৃতা, আবৃত্তি, একক ও সমন্বিত ভাবে গান পরিবেশন করা হয়। সহকারি শিক্ষক শাহজালাল মুনিরের উপস্থাপনায় এতে শিক্ষকদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সহকারী শিক্ষক জসীম উদ্দীন (বাংলা) ও সহকারী শিক্ষক আবু বক্কর সিদ্দিক।
শুরুতে স্বাগত বক্তব্য দেন সহকারী প্রধান শিক্ষক মোঃ জসিম উদ্দিন। শুভেচ্ছা জ্ঞাপন ও সমাপনী বক্তব্য দেন প্রধান শিক্ষক খুরশীদুল জন্নাত।
কবিতা আবৃত্তি করেন সিনিয়র শিক্ষক পূরনাম পাল।
আলোচকরা বলেন, কালজয়ী এ কবি বাংলা ভাষা ও সাহিত্যকে বিশ্বমানে উন্নীত করেছেন। তিনি বাঙালির চিন্তা ও মননে আধুনিকতার উন্মেষ ঘটিয়েছেন। জাতির মানস গঠনে তার ছিল অগ্রণী ভূমিকা। বক্তারা কর্ম ও সৃজনশীলতায়
এ কবি বিশ্ববাসীর কাছে চির জাগরুক থাকবে বলে মন্তব্য করেন।
প্রধান শিক্ষক তার বক্তব্য বলেন, আত্মিক মুক্তি ও স্বনির্ভরতার প্রতীক হিসেবে নোবেল জয়ী রবীন্দ্রনাথ বাংলা সাহিত্যের সকল শাখায় অসামান্য দক্ষতার স্বাক্ষর রেখেছেন। তিনি ছিলেন একাধারে কবি, দার্শনিক, গীতিকার, সুরকার, শিক্ষাবিদ, চিত্রশিল্পী, নাট্য প্রযোজক ও অভিনেতা।
তিনি বলেন, গীতাঞ্জলি কাব্যগ্রন্থ ইংরেজিতে অনুবাদের জন্য ১৯১৩ সালে
এশিয়দের মধ্যে তিনি প্রথম বাংলা সাহিত্যে বিশ্বের সর্বোচ্চ পুরস্কারে ভূষিত হন।
সহকারি প্রধান শিক্ষক বলেন, বাঙালিদের স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তির ক্ষেত্রে তার গান- কবিতা অসামান্য অনুপ্রেরণার উৎস।
তিনি দেশের প্রতিটি সংগ্রামে এ কবির রচনা চিরকাল প্রাণের সঞ্চার করে বলে মন্তব্য করেন।
অনুষ্ঠান উপভোগ করেন সিনিয়র সহকারী শিক্ষক, সহকারী শিক্ষক ও অধ্যয়ণরত শিক্ষার্থীরা।

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন
© All rights reserved © dailyamarsomoy.com