২৯ হাজার নষ্ট ও পচা ডিম ধ্বংস করল ভোক্তা অধিকার

বাজারে কম দামে বিক্রি করে বেশি মুনাফা প্রাপ্তির আশায় সংগ্রহ করা প্রায় ২৯ হাজার নষ্ট ও পচা ডিম ধ্বংস করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। যেসব ডিম বরিশাল নগরের বিভিন্ন এলাকার বেকারি ও দোকানে সরবরাহ করার অপেক্ষায় ছিল। গতকাল শনিবার দুপুরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ১০ আর্মড পুলিশ ব্যাটেলিয়ানের সদস্যদের সহযোগিতায় বরিশাল নগরের নাজিরেরপুল এলাকায় এ অভিযান চালানো হয়। অভিযানে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের বরিশাল বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক সুমি রানী মিত্র ও জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মোঃ শাহ্ শোয়াইব নেতৃত্ব দেন। অভিযান সূত্রে জানা গেছে, জাতীয় ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদপ্তর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে নগরের বিভিন্ন বেকারি ও দোকানে একটি ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠান কম দামে নষ্ট ও পচা ডিম সরবরাহ করছে। এতে প্রকৃত ডিম ব্যবসায়ীরা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। ওই সংবাদের ভিত্তিতে সোর্সের মাধ্যমে গতকাল শনিবার অভিযানিক দল নিশ্চিত হয় নগরের নাজিরেরপুল এলাকায় ফেরদাউস এন্ড ব্রাদার্স নামের একটি প্রতিষ্ঠান ঢাকা থেকে নষ্ট ও পচা ডিম এনে তাদের গোডাউনে রেখেছে। এ তথ্যানুযায়ী ফেরদাউস এন্ড ব্রাদার্স নামের ওই ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালিয়ে ২৮-২৯ হাজার নষ্ট ও পচা ডিম উদ্ধার করা হয়। এসময় ওই ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠানকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। পাশাপাশি ভবিষ্যতে এ ধরনের কাজ থেকে বিরত থাকার মর্মে মুচলেকা নেয়। পরবর্তীতে উদ্ধার করা নষ্ট ও পচা ডিমগুলো নগরের কাউনিয়া এলাকার বিসিসি’র ময়লার ডাম্পিং স্টেশানে নিয়ে ধ্বংস করা হয়। অপরদিকে ঢাকা থেকে নষ্ট ও পচা ডিম সংগ্রহকারী প্রতিষ্ঠানের দেয়া তথ্যানুযায়ী, নগরের কাউনিয়া বিসিক এলাকায় অবস্থিত মনখুশি বেকারিতে অভিযান চালানো হয়। ওইসময় নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য পণ্য তৈরি ও সংরক্ষণ করা এবং পচা ডিম সহযোগে কেক তৈরির অপরাধে মনখুশি বেকারিকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।