সিঙ্গাপুরে প্রথম বাংলাদেশি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত

চীন থেকে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে সিঙ্গাপুরে আক্রান্তদের মধ্যে একজন বাংলাদেশি রয়েছেন বলে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে। আক্রান্ত ও ব্যক্তির বয়স ৩৯ বছর। সেখানে আরও তিনজনকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে।

রোববার (৯ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় সিঙ্গাপুরের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়। ফলে প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে প্রথমবারের মতো কোনও বাংলাদেশির আক্রান্ত হওয়ার খবর এলো।

সিঙ্গাপুর ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম সিএনএ দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে এ খবর প্রকাশ করেছে।

সিএনএ জানায়, আক্রান্ত ব্যক্তি সাম্প্রতিক সময়ে চীনে ভ্রমণ করেননি। গত ১ ফেব্রুয়ারি তার শরীরে করোনার উপসর্গ দেখা দেয়। ৩ ফেব্রুয়ারি তিনি স্থানীয় একটি ক্লিনিকে ভর্তি হন। এরপর ৫ ফেব্রুয়ারি তিনি হাসপাতালে ভর্তি হন। ৭ ফেব্রুয়ারি তাকে আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়।

কয়েকটি পরীক্ষা শেষে চিকিৎসকরা ওই বাংলাদেশি নাগরিকের শরীরে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেন এবং তাকে পৃথক ওয়ার্ডে স্থানান্তর করেন।

হাসপাতালে ভর্তির পূর্বে বাংলাদেশি নাগরিক মুস্তফা সেন্টারে ভ্রমণ করেন এবং কাকি বুকিট রোডে লিও ডরমেটরিতে অবস্থান করেন।

সিঙ্গাপুরের ইংরেজি দৈনিক স্ট্রেইট টাইমস বলছে, ৩৯ বছর বয়সী এক বাংলাদেশি প্রবাসীকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত করে সিঙ্গাপুরের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। বাংলাদেশি এই প্রবাসীকে সিঙ্গাপুরের এনসিআইডির আইসোলেশন ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে।

দেশটির এই দৈনিক বলছে, গত ১ ফেব্রুয়ারি তার শরীরে করোনাভাইরাসের লক্ষণ পাওয়া যায়। পরে ৩ ফেব্রুয়ারি তাকে সিঙ্গাপুরের জিপি ক্লিনিকে পাঠানো হয়। এর দুদিন পর ৫ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশি এই প্রবাসীকে চাঙ্গি জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।