সাংবাদিক মুজাক্কির হত্যার বিচারের দাবীতে উত্তাল নোয়াখালী

আবুল কালাম স্বাধীন , নোয়াখালী প্রতিনিধি- নোয়াখালীতে পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কিরের খুনীদের গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে  উত্তাল নোয়াখালীবাসী। মানববন্ধন , বিক্ষোভ  সমাবেশ করেছে জেলা ও বিভিন্ন উপজলোয় কর্মরত সাংবাদিকরা।

রবিবার দুপুর ১২ টায় নোয়াখালী প্রেসক্লাব, কোম্পানীগঞ্জ উপজলো ও চাটখিল উপজলোয় মানববন্ধন, বিক্ষোভ  সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধন ও বিক্ষোভ  সমাবেশে সাংবাদিক ছাড়াও বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ সংহতি প্রকাশ করনে।
মানববন্ধনে বক্তারা খুনের সঙ্গে জড়িত সব আসামিদের আগামি ২৪ ঘন্টার মধ্যে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানান। তাঁরা হত্যায় জড়িত ব্যক্তিদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেন। লাশ নিয়ে যেনো কেউ রাজনীতি করতে না পারে তার হুশিয়ারি দেন।  অন্যথায় কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে বলেও ঘোষণা দেন তারা।
সাংবাদকি নেতৃবৃন্দ বলেন, আগেও অনেক সাংবাদিক হত্যা ও নির্যাতনের ঘটনার সুষ্ঠু বিচার না হওয়ায় এ ধরণের সহিংস ঘটনার পুনরাবৃত্তি হচ্ছে।
মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি বখতিয়ার শিকদার, দৈনিক ইত্তেফাকের জেলা প্রতিনিধি ও প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আলমগীর ইউসুফ, প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও দেশ রূপান্তরের জেলা প্রতিনিধি জামাল হোসেন বিষাদ, ইন্ডিপেন্ডেন্ট টিভির জেলা প্রতিনিধি ও যায়যায়দিনের স্টাফ রিপোর্টার আবু নাছের মঞ্জু, এটিএন বাংলা ও এটিএন নিউজের জেলা প্রতিনিধি ফুয়াদ হোসেন, প্রথম আলোর নিজস্ব প্রতিবেদক মাহবুবুর রহমান দৈনিক দিশারী সম্পাদক আকাশ মো জসিম দৈনিক সচিত্র নোয়াখালী সম্পাদক আমিরুল ইসলাম হারুন সহ সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ। এছাড়াও মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশে অন্যান্যদের উপস্হিত ছিলেন আমার সংবাদের জেলা প্রতিনিধি  ও রিপোর্টস ক্লাবের সাবেক যুগ্ন সম্পাদক  ইমাম উদ্দিন আজাদ,
ইদ্রিশ মিয়া,   এ আর আজাদ সোহেল, বিধান বাবু, সানজিদা( অনু)
এদিকে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কিরের নিহতের ঘটনায় জড়িতদের শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন করেছে প্রেসক্লাব কোম্পানীগঞ্জ। রবিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার বসুরহাট বাজারের বঙ্গবন্ধু চত্বরে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এইচএম মান্নান মুন্না, প্রেসক্লাব কোম্পানীগঞ্জের সভাপতি হাসান ইমাম রাসেল, প্রেসক্লাব কোম্পানীগঞ্জের সেক্রেটারি গিয়াস উদ্দিন রনিসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।
মানববন্ধনে বক্তারা রাজনৈতিক সহিসংসতার বলি হওয়া এই তরুণ সংবাদকর্মীর নিহতের ঘটনার সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান এবং শোকসন্তোপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। মানববন্ধন শেষে একটি প্রতিবাদ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলটি বাজারের বাজারের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবে এসে শেষ হয়।
পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় সাংবাদিক  বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যুর ঘটনায় প্রতিবাদে সমাবেশ করেছে চাটখিল উপজেলার সাংবাদিকরা। চাটখিল পৌর শহরের প্রধান সড়কে সোমবার দুপুরে অনুষ্ঠিত চাটখিল উপজেলা প্রেসক্লাব ও সাংবাদিক ফোরামের উদ্যোগে আয়োজিত এই সমাবেশে উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক কামরুল কাননের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, প্রেসক্লাব সভাপতি মিজানুর রহমান বাবর, সাংবাদিক ফোরাম সভাপতি আবু তৈয়ব, সাংবাদিক ইয়াছিন চৌধুরী, আনিস আহমেদ হানিফ, জাহাঙ্গীর আলম, স্বপন পাটোয়ারী, সাইফুল ইসলাম রিয়াদ, নজরুল দেওয়ান, মহি উদ্দিন বাবু প্রমূখ। সমাবেশে বক্তারা সাংবাদিক  মুজাক্কিরের হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবী জানান।
উল্লেখ্য, শুক্রবার বিকেল ৫টার দিকে উপজেলার চরফকিরা ইউনিয়নের চাপরাশীরহাট পূর্ববাজার এলাকায় দু’গ্রুপের সংঘর্ষ চলাকালে সংঘর্ষের চিত্রধারনের সময় গুলিবিদ্ধ হন সাংবাদিক মুজাক্কির। গুরতর আহত অবস্থায় প্রথমে তাকে ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হয়, পরে অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ঢামেকের নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে চিকিৎসাধিন অবস্থায় শনিবার রাত ১০টা ৪০ মিনিটের দিকে মুজাক্কিরের মৃত্যু হয়।