সমবায়ের প্রতিবন্ধকতা দূরীকরণ ও কর যৌক্তিক পর্যায়ে নামিয়ে আনা হবে

মোঃ রেজাউল করিম, ঈদগাঁও, কক্সবাজারঃ স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য এমপি বলেছেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা সমবায়কে জোরদারকরণ এবং আমার বাড়ী আমার খামার এর মত প্রকল্পের মাধ্যমে জনগণকে সম্পৃক্ত করেছেন। স্বচ্ছতা, দক্ষতা এবং সু-ব্যবস্থার মাধ্যমে সমবায়কে পরিচিত করতে হবে।  যোগ্য ও বলিষ্ট নেতৃত্বের মাধ্যমে সমবায়কে সু-প্রতিষ্ঠিত করা সম্ভব। তিনি আজ সকালে কক্সবাজারের একটি হোটেলে দুই দিনব্যাপী বাংলাদেশ ক্রেডিট ইউনিয়ন ফোরাম এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন কালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন। “টেকসই সমবায়ের জন্য সুশাসন” প্রতিপাদ্যে শুরু হওয়া এ অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী  সমবায়ের স্বাভাবিক বিকাশে প্রতিবন্ধকতাসমূহ দূরীকরণ এবং কর যৌক্তিক পর্যায়ে নামিয়ে আনার আশ্বাস দেন। প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু যে সংবিধান রচনা করেন, সেখানেই তিনি সমবায়কে অর্ন্তভূক্ত করেছিলেন। এর আগেই আমাদের রবিন্দ্রনাথ ঠাকুর যখন কুষ্ঠিয়ার শিলাইদহে এবং পাবনা শাহজাদপুরে জামিদারী দেখাশুনা করতেন, তখন তিনি আধুনিক চাষাবাদের ব্যবস্থা করেছিলেন এবং কৃষি ব্যবস্থায় সমবায়কে প্রয়োগ করেছিলেন। সমবায় বিষয়ে তাঁর একটি প্রবন্ধ রয়েছে। সেখানে তিনি বলেছেন, একমাত্র সমবায় আন্দোলনের মাধ্যমে এই জাতি প্রতিষ্ঠিত হতে পারে বা ঐক্যবদ্ধ হতে পারে। তারই ধারাবাহিকতায় অধ্যক্ষ আকতার হামিদ খান সমবায়কে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দেয়ার জন্য কুমিল্লায় বার্ড প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। আমাদের জাতির পিতা বগুড়ায় আরডিএ প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। এসব কাজের মূল লক্ষ্য ছিল, সমবায় আন্দোলনের মাধ্যমে মানুষকে প্রতিষ্ঠিত করা। বঙ্গবন্ধু সর্বশেষ যে দ্বিতীয় বিপ্লবের ডাক দিয়েছিলেন, সেখানে অনেকটাই নির্ভর করেছিল সমবায়ের উপর। যে কারনে তিনি বলেছিলেন, সমাজ হবে সমবায় ভিত্তিক। কৃষি, কুটির শিল্প সবকিছু তিনি সমবায়ের মাধ্যমে প্রয়োগ করতে চেয়েছিলেন। তার লক্ষ্য ছিল ধনবাদী সমাজ ব্যবস্থায় অর্থনৈতিক বৈষম্যের মাধ্যমে শোষক শ্রেণীর মুষ্টিমেয় লোকদের হাতে অর্থ যাতে না চলে যায়। এদেশের মুলশক্তি কৃষক বা সাধারণ মানুষ যে অর্থনৈতিক বিপর্যয়ের মধ্যে পড়েছে এর সমাধান করার জন্য তিনি সমবায়কে অবলম্বন করেছিলেন।
বাংলাদেশে ক্রেডিট ইউনিয়ন সমূহের শীর্ষ প্রতিষ্ঠান দি কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লীগ অব বাংলাদেশ লিঃ (কাল্ব) আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ককসবাজার -২ আসনের সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক, সমবায় অধিদপ্তরের নিবন্ধক ও মহাপরিচালক মোঃ আমিনুল ইসলাম, কাল্ব চেয়ারম্যান মুক্তিযুদ্ধা জোনাস ঢাকী এবং এসোসিয়েশন অব এশিয়ান কনফেডারেশন অব ক্রেডিট ইউনিয়ন (আকু) এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মিস এলিনেটা ভি সানরকে লেনী।