শ্রীপুরে বিএনপির রাজনীতি ‘কোয়ারেন্টিনে’! সেলফিতে ত্রান তৎপরতা সীমিত

আলফাজ সরকার আকাশ, শ্রীপুর (গাজীপুর) থেকেঃ–করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট বিশেষ পরিস্থিতিতে গাজীপুরের শ্রীপুরে বিএনপির তৃণমূল ও মধ্যম সারির কয়েকজন নেতার উদ্যোগে ত্রাণ তৎপরতা ও সুরক্ষাসামগ্রী বিতরণ করা হলেও উপজেলা বিএনপির নীতিনির্ধারণী ও সিনিয়র নেতাদের অনেকেই আড়ালে রয়েছেন।

কেন্দীয় পর্যায়ের দু-একজন ব্যক্তিগত তহবিল থেকে সহায়তা কার্যক্রম পরিচালনা করলেও করোনা সংক্রমণের শুরু থেকে ‘রাজনৈতিকভাবে’ নিষ্ক্রিয় রয়েছেন স্থানীয় ও জাতীয় নির্বাচনী পূর্ব মুহূর্তে দলের মনোনয়ন প্রত্যাশী অধিকাংশ নেতা।

গত কয়েক মাসের রাজনৈতিক তৎপরতা পর্যালোচনা ও বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশনায় বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক অধ্যাপক ডাঃ রফিকুল ইসলাম বাচ্চু, গাজীপুর জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য  সাখাওয়াত হোসেন সবুজ, শ্রীপুর পৌর বিএনপির সভাপতি কাজী খান, জেলা বিএনপির সদস্য আক্তারুল আলম মাস্টার, থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক প্রত্যাশী ও থানা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি মশিউর রহমান টিটু,গোসিংগা ইনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আসাদুজ্জামান,জেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক বিল্লাল বেপারী, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক কায়সার মৃধা খোকন,জেলা যুবদলের সমাজকল্যাণ সম্পাদক মাইদুর রহমান খান সজিব,বিএনপি নেতা জাহাঙ্গীর মন্ডল, গোসিংগা যুবদল নেতা আকতার হোসেন আকন্দসহ কয়েকজন নেতা খাদ্য সামগ্রী ও সুরক্ষা সরঞ্জাম নিয়ে অসহায়দের পাশে দাড়িয়েছেন।

এছাড়াও, বরাবরের মতোই চিকিৎসা সেবার অংশ হিসেবে করোনায় আক্রান্তদের দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি, পরামর্শ ও চিকিৎসা সহয়তা দিয়ে যাচ্ছেন ডাঃ রফিকুল ইসলাম বাচ্চু।

অন্যদিকে, লক ডাউনে কর্মহীন থাকা হাতে গুনা কয়েকজন অসচ্ছল ব্যক্তিকে আর্থিক সহায়তার ছবি ইন্টারনেটের মাধ্যমে লোক দেখানোর মধ্যেই সীমাবদ্ধ রয়েছেন অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিএনপি নেতা। এ নিয়ে অধিকাংশ নেতারাও রয়েছেন একেবারেই চুপচাপ। আর ত্রাণ দিয়ে পূনরায় ফিরিয়ে নেয়ারও ভিডিও ভাইরালও হয়েছে পৌর এক প্রভাবশালী বিএনপি-র নেতার।

এ উপজেলার সরকারি দলের নেতাদের দাবী, করোনা সংক্রমণের পর সর্বদলীয় উদ্যোগের ভিত্তিতে পরিস্থিতি মোকাবিলা করার রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত থাকলেও বিএনপি নেতারা বিষয়টিকে আর এগিয়ে নেননি। অনেকটা নিজেদের সঙ্গে দলীয় রাজনীতিকেও কোয়ারেন্টিনে আবদ্ধ রেখেছেন তারা।

তবে বিএনপি-র দাবী, শুরু থেকে করোনাভাইরাস নিয়ে ঐক্যবদ্ধ অবস্থান ব্যক্ত করেছে বিএনপি । কিন্তু যত সময় গেছে, বিষয়টিকে তত দলীয় দৃষ্টিকোণ থেকে বিবেচনা করেছে ক্ষমতাসীন দল। বিশেষ করে বিএনপির কোনও বক্তব্যকেই সহজভাবে না নিয়ে অপব্যাখ্যা করেছেন সরকারের গুরুত্বপূর্ণ কিছু ব্যক্তি।

এ বিষয়ে বিএনপির কেন্দীয় কমিটির সহ-স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক অধ্যাপক ডাঃ রফিকুল ইসলাম বাচ্চু বলেন, দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নেতৃত্বে আমরা সারা দেশে ত্রাণ কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছি। কিন্তু সরকারের পক্ষ থেকে অপব্যাখ্যা দেওয়া হচ্ছে বিএনপি কিছু করছে না। আমরা শুরু থেকেই জাতীয় ঐক্যের ভিত্তিতে করোনাভাইরাস মোকাবিলা করার কথা বলে এসেছি। সর্বদলীয় ভিত্তিতে ঐক্যবদ্ধ প্রয়াস করা সম্ভব হলে সমস্যাগুলো চিহ্নিত করা যেমন সহজ হতো, তেমনই বিশ্বশক্তি উপলব্ধি করতো, আমাদের দেশে রাজনৈতিকভাবে জাতীয় ঐক্য প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। কিন্তু দল হিসেবে আওয়ামী লীগ এককভাবে কার্যক্রম করতে চায়।’

জাতীয় ঐক্য করা হলে ত্রাণ বিতরণে চুরি,দুর্ণীতি ও লুটপাট হতোনা জানিয়ে তিনি আরও বলেন, বিএনপি নিজেদের ব্যক্তিগত তহবিল থেকে অসহায় ও দরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে। সামর্থ ও সাধ্যের মধে আমরা চেষ্টা করছি কর্মহীন অসহায় মানুষের সঙ্গে থাকতে। দলের সর্বস্তরে এ নির্দেশনা দেওয়া আছে।