লোহাগাড়ায় যুবককে অপহরণ করে এক লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবীর অভিযোগে সিএনজিসহ আটক ২

মো. এরশাদ আলম, লোহাগাড়া চট্টগ্রাম
চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় এক যুবককে অপহরণ করে এক লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবী করার অপরাধে সিএনজি চালকসহ ২জনকে আটক করেছে থানা পুলিশ। ওই সময় সিএনজি গাড়ীটিও জব্দ করা হয়।

শুক্রবার (১০সেপ্টেম্বর) রাত ১১টায় উপজেলার পদুয়া বার আউলিয়া মাজার গেইটের সামনে হতে তাদের আটক করা হয়।

থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাকের হোসাইন মাহমুদ জানান, শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে উপজেলার পদুয়া ইউনিয়নের হদ্দালি পাড়া এলাকার মো. শাহ আলমের পুত্র মো. আলা উদ্দিন (৪০) নামের এক যুবককে বাজারের উত্তর পার্শ্বে সিকদার দিঘীর পাড় হতে সংঘবদ্ধ ৬জনের দল একটি সিএনজি গাড়ীতে তুলে নিয়ে যায়।

পরে অপহরণকারীরা তাকে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে তার কাছ থেকে ১লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবী করেন। আলা উদ্দিন নিরুপায় হয়ে তার স্ত্রীকে মুঠোফোনে কল দিয়ে মুক্তিপণ নিয়ে তাদের সাথে দেখা করতে বলেন।

স্ত্রী বুলু আকতার তার স্বামীর অপরহণের বিষয়টি পদুয়া ইউনিয়ন সামাজিক ব্যাধি প্রতিরোধ ফোরামের সভাপতি সব্বির আহমদকে জানালে তিনি সাথে সাথে লোহাগাড়া থানায় অবহিত করেন।

একইদিন রাত ১১টার দিকে তার স্ত্রীকে সাথে নিয়ে থানা পুলিশের একটি টিম চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের বার আউলিয়া মাজার গেইটের সামনে হতে সিএনজি চালক সহ ২জন অপহরণকারীকে আটক করে। তাৎক্ষণিক আরো ৪জন পালিয়ে যায়। ওই সময় একটি সিএনজি ও ভিকটিম যুবককে উদ্ধার করা হয়।

আটককৃতরা হল উপজেলার পদুয়া ইউনিয়নের নিজতালুক এলাকার মুহাম্মদ ফরিদ উদ্দিনের পুত্র মুুহাম্মদ ইমরান(২০) এবং সাতকানিয়া উপজেলার ছদাহা নুনু চৌধুরী বাড়ি এলাকার মুহাম্মদ শাহেদের পুত্র মুহাম্মদ জমির উদ্দিন(২৩)।

এ ঘটনায় আককৃতদের বিরুদ্ধে থানায় অপরহণ ও চাঁদাবাজি মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানান থানার ওসি জাকের হোসাইন মাহমুদ।