বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু তথ্য প্রযুক্তি লীগ থেকে হাজী আজহারুল ইসলামকে বহিস্কার

রাকিব হাসান, স্টাফ রিপোর্টারঃ গতকাল ২৫ শে জুন ২০২০ ইং তারিখ সন্ধ্যা ৭:০০ ঘটিকায় সময় বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু তথ্য প্রযুক্তি লীগ এর সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী কমিটি স্ট্যান্ডিং কমিটির সিংহভাগ এবং কেন্দ্রীয় কমিটির নেতৃবৃন্দদের এক জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয় এতে কেন্দ্রীয় কমিটির প্রতিষ্ঠাকালীন সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ নাইম বেপারীর সভাপতিত্ব করেন, যেখানে উপস্থিত ছিলেন মোহাঃ আব্দুল মুত্তালিব (উজ্জ্বল) উপদেষ্টা কেন্দ্রীয় কমিটি, মুনীরা সেতু উপদেষ্টা কেন্দ্রীয় কমিটি, শেখ আক্তারুজ্জামান প্রতিষ্ঠাকালীন সহ-সভাপতি, সাদ্দাম হোসেন প্রতিষ্ঠাকালীন সহ-সভাপতি, রুবেল শিকদার সহ সভাপতি , জেসমিন আক্তার কলি প্রতিষ্ঠাকালীন সহ-সভাপতি, এইচএম ফিরোজ সহ-সভাপতি, সোহেল রানা প্রতিষ্ঠাকালীন সহ-সভাপতি, মানিক হাসান মিলু প্রতিষ্ঠাকালীন সহ সভাপতি, খলিলুর রহমান প্রতিষ্ঠাকালীন সহ-সভাপতি, রোজি খান প্রতিষ্ঠাকালীন সহ-সভাপতি, এস এম আরিফুল ইসলাম প্রতিষ্ঠাকালীন সহ-সভাপতি, মাহমুদুল হাসান তানভির সহ-সভাপতি, মোঃ রিয়াদ ব্যাপারী সহ-সভাপতি , বুলেট খান সহ-সভাপতি , এস কে মিকুল সহ-সভাপতি , মোহাম্মদ শানু সহ-সভাপতি , ইঞ্জিনিয়ার মেহেদী হাসান সহ সভাপতি ,মোঃ সোহেল সহ সভাপতি , মোঃ সুরুজ্জামান খান সুরুজ প্রতিষ্ঠাকালীন সাধারণ সম্পাদক,মীর পারভেজ প্রতিষ্ঠাকালীন যুগ্ন সাধারন সম্পাদক, মোঃ শফিকুল ইসলাম প্রতিষ্ঠাকালীন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, মোঃ সোহাগ মিয়া যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, মোঃ সাদিকুর রহমান সাংগঠনিক সম্পাদক ,আলফাজ উদ্দিন সাংগঠনিক সম্পাদক, মোঃ রোকনুজ্জামান প্রতিষ্ঠাকালীন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, মোঃ রঞ্জু মিয়া, প্রতিষ্ঠাকালীন অর্থ সম্পাদক, মোহাম্মদ সালাউদ্দিন প্রতিষ্ঠাকালীন উপ অর্থ সম্পাদক, মোঃ লতিফ মণ্ডল প্রতিষ্ঠাকালীন সাংগঠনিক সম্পাদক ,ইলিয়াস তালুকদার প্রতিষ্ঠাকালীন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, মোঃ নাহিদ সাংগঠনিক সম্পাদক , আবু বকর সিদ্দিকী জুয়েল সাংগঠনিক সম্পাদক, আমিনুল ইসলাম যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক , মেহেদি হাসান সাংগঠনিক সম্পাদক ,মোহাম্মদ জোবায়ের আহমেদ সাংগঠনিক সম্পাদক, দেব চৌধুরী টুটুল শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক ,সুকুমার রাজ উপ-শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক,

নাঈম কাউছার আন্তর্জাতিকবিষয়ক সম্পাদক, মহিদুর রহমান রেজা উপ উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদক, মোঃ সোহেল হাওলাদার, তানজিম আহমেদ সানি তপাদ্দার সহ সম্পাদক, আবু কাউসার উপ-পরিবেশ সম্পাদক, মোঃ মোন্তাজ মোঘল উপ-পরিবেশ সম্পাদক সহ কেন্দ্রীয় কমিটির প্রায় সকলের উপস্থিতিতে বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু তথ্য প্রযুক্তি লীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের এক জরুরি সিদ্ধান্ত মোতাবেক জানানো যাচ্ছে যে, বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু তথ্য প্রযুক্তি লীগ কেন্দ্রীয় কমিটি সভাপতি হাজী আজহারুল ইসলামের বিরুদ্ধে গঠনতন্ত্র পরিপন্থী ও দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে আনিত অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় তাকে বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু তথ্য প্রযুক্তি লীগ কেন্দ্রীয় কমিটি থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার দেওয়া হলো। উল্লেখ্য যে বিভিন্ন ধরনের অপকর্ম- দুর্নীতি যেমন নারী কেলেংকারী, অর্থ কেলেঙ্কারি, নেতাকর্মীর নিয়োগ বানিজ্য সহ এজেন্ট নিয়োগ দিয়ে জেলা উপজেলায় টাকা আদায়সহ সহ বিভিন্ন অপকর্মের মদদদাতা হিসেবে সংশ্লিষ্টতা পাওয়ার অভিযোগ প্রমাণিত হয়। যা সংগঠনের গঠনতন্ত্রের পরিপন্থী। এ ব্যাপারে স্ট্যান্ডিং কমিটি এবং কেন্দ্রীয় কমিটির নেতৃবৃন্দ বারবার সতর্ক করেলেও তাদের বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে গুটিকয়েক লোক নিয়েই এধরণের অপরাধ চালিয়ে যাচ্ছিলেন। এমনকি প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্যদের বাদ দিয়ে নতুন এসব কিছু এজেন্ট নিয়ে অন্যায়ের প্রতিবাদ করা এসব পুরাতন নেতৃবৃন্দদের অর্থাৎ সাধারণ সম্পাদক সহ কেন্দ্রীয় শীর্ষস্থানীয় নেতাদের বাদ দেওয়ার হুমকি দেয়। এ ছাড়াও প্রযুক্তির ব্যবহার করে প্রতিবাদী এসব নেতাদের নাম, ছবি, ফেইসবুক ম্যাসেন্জারে এডিট করে অসত্য, বানোয়াট এবং মিথ্যা কনভারসেশন তৈরি করে বিভিন্ন নেতাকর্মীদের মধ্যে বিভ্রান্তির অপচেষ্টা চালিয়ে যান। তাই স্ট্যান্ডিং কমিটি এবং কেন্দ্রীয় কমিটির নেতৃবৃন্দদের এক জরুরি সভায় তাকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। আরও উল্লেখ্য যে, খোঁজ খবর নিয়ে জানা যায় হাজী আজহারুল ইসলাম একজন নৌবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত সাধারণ সৈনিক, বর্তমানে (STMK)প্রজেক্ট কুয়েতে কর্মরত আছেন, সে নিজেকে কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে সংগঠনের সকল নেতৃবৃন্দের সাথে প্রতারনা করেছেন এবং মুজিব আদর্শের সংগঠনকে ব্যবহার করে অনৈতিক এবং বিভিন্ন কমিটিতে একক সিদ্ধান্তে অর্থের মাধ্যমে বিতর্কিত লোকদের সদস্য নিয়োগ দিয়েছেন। হাজী আজহারুল ইসলামের এমন কর্মকান্ডে সংগনের সকল সম্মানিত নেত্রীবৃন্দ মর্মাহত, ব্যতিত, লজ্জিত। এছাড়াও আজহারুল ইসলামের রাজনৈতিক কোন অভিজ্ঞতা নেই এবং মূল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বা এর কোন অংগ সংগঠনের কোনদিন সদস্য পদেও ছিলেন না। এতোদিন বিদেশে বসেই এইসব অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের মদদ দিয়ে যাচ্ছিলেন এবং বর্তমানে দেশে ছুটিতে ফিরেই উপরোক্ত অপকর্ম-দুর্নীতি ব্যাপকভাবে চালিয়ে যাচ্ছিলেন। সংগঠনের শৃঙ্খলা ও সংগঠনের কার্যক্রম গতিশীল করার লক্ষ্যে সিনিয়র সহসভাপতি নাঈম বেপারীকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব প্রদান করা হয়।