ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সাবেক ছাত্রলীগ নেতার মুক্তির দাবীতে মহাসড়ক অবরোধ, পুলিশের বাঁধায় মানবন্ধন পন্ড!

মোঃ আল মামুন,জেলা প্রতিনিধি,ব্রাহ্মণবাড়িয়া: ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাসুম বিল্লাহকে দ্রুত মুক্তির দাবীতে আয়োজিত মানবন্ধন পুলিশি বাঁধায় পন্ড হয়ে গেছে। বুধবার সকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সামনে ছাত্রলীগের বিক্ষোব্ধ নেতাকর্মীরা মানববন্ধর করতে চাইলে, এতে পুলিশ তাতে বাঁধা দেয়। এসময় পুলিশী বাধাঁয় পন্ড হয় মানববন্ধন। এই সময় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীকর্মীরা বলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাসুম বিল্লাহকে একটি মিথ্যা সাজানো মামলায় জড়ানো হয়েছে। তারা এই ঘটনার সঠিক তদন্তের দাবী জানান।
এই ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সেলিম উদ্দিন জানান মঙ্গলবার বিকেলে জেলার সরাইল থানা পুলিশ ৬ বোতল ফেন্সিডিলসহ এবং পুলিশকে মারধরের ঘটনায় সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মাসুম বিল্লাহ কে আটক করে। এই ঘটনায় তারা মানববন্ধন করতে চাইলে তাদেরকে এখান থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়।
এদিকে বুধবার দুপুরে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের আশুগঞ্জে রেলগেইট, বিশ্বরোড় মোড, কুট্রাপাড়া মোড়, চান্দুরা, ও কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের সহিলপুর ও ঘাটুরা, পীরবাড়ি, মেড্ডা ও আখাউড়া বাইপাস সড়ক এলাকায় ছাত্রলীগ কর্মীরা প্রায় ঘন্টাখানেক মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। এসময় টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করে। খবর পেয়ে খাটিখাতা হাইওয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে দ্রুত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে। পরবর্তীতে মহাসড়কে যানবাহান চলাচল স্বাভাবিক হয়।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন শোভন সাংবাদিকদের জানান একটি চক্র পরিকল্পিত ভাবে সাজানো একটি ঘটনায় জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সফল সভাপতি মাসুম বিল্লাহকে জড়িয়ে দিয়েছে। এসময় তিনি তাকে অবিলম্বে মুক্তি ও একটি নিরপক্ষ তদন্ত করে মূল ঘটনার রহস্য উদ্ঘাটন করার দাবি জানান।
এই ব্যাপারে সরাইল থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ.এম.এম নাজমুল আহমেদ জানান, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মাসুম বিল্লাহকে গ্রেপ্তারের পর তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।