বিয়ে করতে না চাওয়ায় নাক, জিভ কেটে নিলো মহিলার!

২৮ বছরের বিধবা এক মহিলা বিয়ে করতে না চাওয়ায় তার নাক ও জিভ কেটে নিয়েছে দুষ্কৃতিকারীরা। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের রাজস্থানের জয়সলমের জেলার সাঁকদা থানা এলাকায়। ঘটনার পর পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে দেশটির পুলিশ। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

আনন্দবাজার জানিয়েছে, ১৭ অক্টোবর বসির খান নামে স্থানীয় এক বাসিন্দা সাঁকদা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। সেখানে তিনি উল্লেখ করেন তার বোন গুড্ডির কথা। গুড্ডির ৬ বছর আগে বিয়ে হয়েছিল। বিয়ের ১ বছরের মাথায় তার স্বামীর মৃত্যু হয়। তার পর থেকে ছেলেকে নিয়েই আছেন গুড্ডি। কিন্তু তার ওপর চাপ তৈরি করছিলেন শ্বশুরবাড়ির লোকেরা। তারা বাধ্য করছিলেন গুড্ডির থেকে ১৫ বছরের বড় এক ব্যক্তিকে বিয়ে করতে। কিন্তু তাতে রাজি হননি তিনি। সেখান থেকেই শুরু ঝামেলা।

দেশটির পুলিশ জানিয়েছে, হামলার দিন বাড়িতে গুড্ডি আর তার মা একাই ছিলেন। সেদিন হঠাৎ তাদের বাড়িতে ঢুকে পড়ে ১০ থেকে ১৫ জন হামলাকারী। তাদের হাতে তলোয়ারসহ একাধিক ধারালো অস্ত্র ছিল। ছিল বন্দুক, লাঠি। সেসময়ই গুড্ডি আর তার মায়ের ওপর হামলাকারীরা ঝাঁপিয়ে পড়ে। গুড্ডির জিভ ও নাক কেটে নেওয়া হয়। চিৎকার শুনে আশেপাশের লোক ছুটে এসে পুলিশকে খবর দেন এবং আহত দুই মহিলাকে হাসপাতালে নিয়ে যান।