বিশ্বনাথে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দগ্ধ ব্যক্তির চিকিৎসা সহায়তা প্রদান করলেন ইউএনও সুমন চন্দ্র

ফারুক আহমদ, বিশ্বনাথ প্রতিনিধি

সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দগ্ধ দিনমজুর এখলাছ আলীকে চিকিৎসা সহায়তা প্রদান করেছেন বিশ্বনাথ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও পৌর প্রশাসক সুমন চন্দ্র দাস। সোমবার ২৬ জুলাই সন্ধ্যায় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে তার চিকিৎসার খোঁজ-খবর নিতে গিয়ে তাকে এ সহায়তা (নগদ অর্থ) দেন তিনি। তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় ওইদিনই তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্যে পাঠানো হয় ঢাকায়।

সূত্র জানায়, গত ১৭ জুলাই পড়শির ছাদে একচালা ঘর নির্মাণ করতে গিয়ে বিদ্যুতের মেইন লাইনে স্পৃষ্ট হন দৌলতপুর ইউনিয়নের মীরগাঁও গ্রামের মৃত ইদ্রিস আলীর ছেলে দিনমজুর এখলাছ আলী।  ছাদের উপড়ে পড়া বাঁশের মাথা কাটতে গেলে তাকে টেনে নেয় মেইন লাইন। কিছু সময় ঝুলে থাকার পর, তাৎক্ষণিক উপস্থিত যুবক হাতে কাপড় পেঁচিয়ে টেনে উদ্ধার করেন তাকে। ততক্ষণে পুঁড়ে যায় তার শরীরের প্রায় অর্ধেক। এরপর দুর্বিসহ যন্ত্রণা নিয়ে ওসমানীতে ভর্তি হন এখলাছ। দীর্ঘ ১১ দিন চিকিৎসার পর শারীরিক অবস্থান অবনতি হলে সোমবার তাকে ঢাকার শেখ হাসিনা বার্ণ ইউনিটে ভর্তি করা হয়। বিশ্বনাথ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও পৌরপ্রশাসক সুমন চন্দ্র দাস বলেন,  বিদ্যুতের মূল লাইনে স্পৃষ্ট হয়ে স্রস্টার কৃপায় বেচে আছেন তিনি। তার জীবনের এই দু:সময়ে সরকারের পক্ষে উপজেলা প্রশাসন পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছে। দ্রুত সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনযাপন করবেন তিনি , এটাই প্রত্যাশা করছি।