বিশ্বনাথে প্রতারক আরশাদ মিয়াসহ ৩জন গ্রেফতার:

ফারুক আহমদ বিশ্বনাথ প্রতিনিধি: সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলায় ভয়ংকর প্রতারক আরশাদ মিয়াসহ ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ।

বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শামীম মুসা এর সার্বিক দিক নির্দেশনায় এসআই দেবাশীষ শর্ম্মা সঙ্গীয় অফিসার ফোর্সসহ অভিযানপরিচালনা করে সিলেটের বিশ্বনাথ থানার মামলা নং-০৩/৩, তারিখ- ০২ জানু, ২০২১, ধারা- ৪০৬/৪২০/৪৯৩/৩৪/১০৯ পেনাল কোড-১৮৬০।মামলার ভয়ংকর প্রতারক আসামী আরশাদ মিয়া (প্রকৃত নাম-ইমাম হোসেন) (৪২), পিতা- মৃত আব্দুল কুদ্দুছ , গ্রাম- ঘোষগাঁও, কোনাপাড়া, উপজেলা/থানা- জগন্নাথ পুর, সুনামগঞ্জ। বর্তমান ঠিকানা: সৈয়দ প্যালেস, বাসা নং-১২৮/১, রোড নং-২, শামীমাবাদ, বাগবাড়ী, ডাকঘর-সিলেট৩১০০, , বাসা শামীমাবাদ আ/এ, উপজেলা/থানা- সিলেট সদর (কোতয়ালী), সিলেট।

বিগত ২০ জানুয়ারী রোজ বুধবার ভোর ০৪.১০ ঘটিকার সময় সুনামগন্জের জগন্নাথপুর থানাধীন তার নিজ বাড়ী হতে গ্রেফতার করা হয়। উক্তআসামী তার সহযোগী অন্যান্য আসামীদের যোগসাজশে বিভিন্ন এলাকায় বাসা ভাড়া নেওয়ার পর তারা সেই বাসায় দুই থেকে তিন দিন অবস্থানকরে এবং প্রতারকবেসী ভুয়া কাজীর মাধ্যমে বিবাহ পড়াইয়া কৌশলে ভুয়া কাবিনামা প্রস্তুত করে।

বিভিন্ন সফটওয়ারের মাধ্যমে ভুয়া কাগজ পত্রের মাধ্যমে নিজেকে ফ্রান্স প্রবাসী হিসেবে উপস্থাপন করে মেয়েদের সাথে বিবাহ ও শারিরীক সম্পর্ককরে। এমনকি তারা দুই থেকে তিন দিন ভাড়া বাসায় অবস্থান করে মেয়েদের অভিভাবকের নিকট হতে কৌশলে টাকা-পয়সা আদায় করে এবংপরবর্তীতে উক্ত মেয়েকে বিদেশে নিয়ে যাবার কথা বলে বিভিন্ন ধরনের অজুহাত দেখিয়ে বিকাশসহ বিভিন্ন মাধ্যমে বিপুল অংকের টাকা হাতিয়েনেয়।

অপরদিকে সিলেট এর বিশ্বনাথ থানার মামলা নং-১৪, তারিখ- ২২ ডিসেম্বর , ২০১৮; ধারা- ৩০২/২০১/২০৩/৩৪ পেনাল কোড-১৮৬০ মামলারএজাহারনামীয় আসামী সিলেট জেলার বিশ্বনাথ উপজেলার কামালপুর গ্রামের ইলিয়াছ আলীর ছেলে হীরা মিয়া (৩৭)। সে দীর্ঘ দিন ধরেপুলিশের চক্ষু ফাঁকি দিয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। ২০ জানুয়ারী সিলেটের গোলাপগন্জ উপজেলার আছিরগন্জ আমকোনা এলাকা থেকে জনৈকওয়ারিছ আলীর বাড়ী থেকে রাত ১০.০৫ ঘটিকার সময় গ্রেফতার করা হয়।

সিলেট এর বিশ্বনাথ থানার মামলা নং-১৬ তারিখ- ১৮ ডিসে, ২০২০; ধারা- ১৪৩/৪৪৭/৩২৩/৩২৪/৩২৫/৩২৬/৩০৭/৩৫৪/৪২৭/৩৪ পেনালকোড-১৮৬০; মামলার অপর আসামী

সিলেট জেলার বিশ্বনাথ উপজেলার বৈরাগীর গাঁও গ্রামের মৃত মনির আলীর ছেলে শানুর আলী (৩০)। তাকে রাত ২.৩০ মিনিটের সময় গ্রেফতারকরা হয়।