বাড়ি ফিরলেন সুস্থ আলী যাকের

‘বাবা এখন আগের চেয়ে অনেক বেটার। সবকিছুই নরমাল। চিকিৎসকদের অনুমতি পেলে কাল বা পরশু আমরা বাড়ি যাবো বলে আশা করছি’- হাসপাতালে ভর্তি অভিনেতা আলী যাকেরের বর্তমান শারীরিক অবস্থার কথা জানান তার পুত্র ইরেশ যাকের। শনিবার দুপুরে অভিনেতা ও প্রযোজক ইরেশ সংবাদমাধ্যেমকে বলেন, ‘যে শঙ্কায় বাবাকে হাসপাতালে নিয়ে এসেছিলাম সেটি কেটে গেছে। তিনি এখন সুস্থ। দোয়া করবেন সবাই।’ কয়েক বছর ধরে ক্যান্সারে আক্রান্ত বরেণ্য নাট্যব্যক্তিত্ব আলী যাকের। বার্ধক্যজনিত নানা রোগেও ভুগছেন তিনি। গত ১৫ নভেম্বর হঠাৎ শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে রাজধানীর বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালের সিসিইউতে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। এখন শারীরিক অবস্থা ভালো। প্রসঙ্গত, ১৯৪৪ সালের ৬ নভেম্বর চট্টগ্রামের রতনপুর ইউনিয়নে জন্মগ্রহণ করেন আলী যাকের। তিনি টেলিভিশন ও মঞ্চ নাটকে সমান জনপ্রিয়। ‘বহুব্রীহি’, ‘রোববার’সহ বহু নাটকে তার অভিনয়ের মুন্সিয়ানা দর্শকের হৃদয় ছুঁয়েছে। মঞ্চেও আলী যাকের এক জাঁদরেল অভিনেতার নাম। একই সঙ্গে দেশীয় বিজ্ঞাপনশিল্পের একজন পুরোধা ব্যক্তিত্ব আলী যাকের। বাংলাদেশের বিজ্ঞাপনী সংস্থাটি এশিয়াটিক থ্রিসিক্সটির কর্ণধার তিনি। তার সহধর্মিণী সারা যাকেরও একজন অভিনেত্রী। তাদের পুত্র ইরেশ যাকের অভিনেতা ও প্রযোজক হিসেবে সমাদৃত। মেয়ে শ্রিয়া সর্বজয়া একজন আরজে হিসেবে পরিচিতি পেলেও তিনি অভিনয়ও করেছেন কিছু নাটকে। শিল্পকলায় অবদানের জন্য ১৯৯৯ সালে বাংলাদেশ সরকার আলী যাকেরকে দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মান একুশে পদকে ভ‚ষিত করে। এ ছাড়া তিনি বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি পুরস্কার, বঙ্গবন্ধু পুরস্কার, মুনীর চৌধুরী পদক, নরেন বিশ্বাস পদক এবং মেরিল-প্রথম আলো আজীবন সম্মাননা পুরস্কার লাভ করেছেন।