বাকলিয়ায় মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের উপর এয়াকুব আলীর নেতৃত্বে হামলার অভিযোগ

জাহাঙ্গীর আলম বিশেষ প্রতিনিধি :

চট্টগ্রাম বাকলিয়ায় মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের উপর সন্ত্রাসী হামলার অভিযোগ করেছেন ।

চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে ১৪ জুনসোমবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন ভুক্তভোগি পরিবারের সদস্য ও ১৮নং পূর্ব বাকলিয়া ওয়ার্ড আওয়ামীগের সভাপতি আহমেদ ইলিয়াস।

তিনি অভিযোগ করেন, কবরস্থানের সাইনবোর্ডটি জরাজীর্ণ হয়ে যাওয়ায় ,উক্ত স্থানে একই অথাৎ বড় মৌলভী কবরস্থান নামে আরেকটি সাইনবোর্ড স্থাপন করতে গেলে সন্ত্রাসী এয়াকুব আলী হঠাৎ তার স্বশস্ত্র দলবল নিয়ে আমাদের উপর ঝাপিয়ে পড়ে ।আমরা সাইনবোর্ডটি নিয়ে কবরস্থানের দিকে অগ্রসর হলে আমাদের প্রথমে ইট নিক্ষেপ করে । এবং এক পর্যায়ে এলোপাথারি গুলি চালায় , যার ছবি বিভিন্ন পত্র পত্রিকা পাওয়া যাবে । বলেন,এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী এয়াকুব আলী লোভের বশবর্তী হয়ে উক্ত কবরস্থানে সাম্প্রতিককালে চাঁদাবাজি শুরু করেছে । এই কবরস্থানে লাশ দাফন করতে হলে তাকে চাঁদা দিতে হত ।

তিনি বলেন ,বঙ্গবন্ধুর দেখানো স্বপ্নের বাংলায় মুক্তিযোদ্ধা পরিবার , আওয়ামী পরিবারের অবস্থা যদি এমন হয় ,সন্ত্রাসী বাহিনীর কাছে তাদের গুলিবিদ্ধ হতে হয় এবং পরবর্তীতে আসামীদের আইনের আওতায় আনা না হয় , আমরা মনে করি জননেত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশে নতুন প্রজন্ম ইতিহাসের উপর আস্থা হারাবে , যা অত্যন্ত বেদনাজনক । আমরা এই ন্যাক্কারজনক ঘটনার তীব্র নিন্দা জানায় এবং সন্ত্রাসী এয়াকুব ও তার সহ দলবলকে অতিসত্তর গ্রেফতারপূর্বক আইনের আওতা এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা হোক ।

বিগত ৭০ বছরের ঐতিহ্য ‘ বড় মৌলতী কবরস্থান ক্রয় সুত্রে আমাদের পারিবারিক কবরস্থান।যা আমাদের এলাকায় সাধারণ জনগণের জন্য উম্মুক্ত। ১৯৫১ সালে আমার পিতা ৭৩ শতক জায়গা ক্রয় করেন । আপনারা জানেন ১৮ নং পূর্ব বাকলিয়া ওয়ার্ডে যে আধুনিক সুবিধা সম্বলিত “ মা ও শিশু হাসপাতাল মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নির্মাণ করেছেন , তাই ঐ ৭৩ শতক জায়গার ২০ শতক জায়গায় নির্মিত । যাহা জনগণের সুবিধায় প্রধানমন্ত্রীর উপহার । কবরস্থানটির প্রতিটি সংস্কার কাজ যেমন গাছ লাগানো , মাটি ভরাট , সরকারী বা ইত্যাদি আমরা পরিচালনা করে আসছি ।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ,সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর শাহীন আক্তার রোজি, আওয়ামী লীগ নেত্রী মোছাম্মদ নূর বেগম, আওয়ামী লীগ নেতা হাজী আব্দুল মুনাফ, হাজী ইয়াকুব, ছাত্রনেতা আব্দুর রহমান, মামলার বাদী সাইফুল্লা আহমদসহ প্রমুখ।