নিজ নিজ অবস্থান থেকে সাধারন মানুষকে আমাদের সহযোহিতা করা উচিত ; রেহানা

মোঃ শফিকুল ইসলাম আরজু, নাঃগঞ্জ প্রতিনিধিঃ নারায়নগঞ্জ ফতুল্লা থানাধীন সস্তাপুর এলাকার মানবদরদী,ধর্মভীরু,সদালাপী, বহুগুণাবলী হিসেবে সবার কাছে সুপরিচিত হক মুখ ফেরদৌসী আক্তার রেহেনা।বাংলাদেশে করোনা সংক্রামন ব্যাধির ভয়াবহতায় শুরু থেকেই অসহায় মানুষের পাশে এগিয়ে এলেন ফেরদৌসী আক্তার রেহানা। সে একজন সমাজ সেবকও মানবাধীকার কর্মী। নিজের শত কাজের ব্যস্ততার মধ্যেও ছুটে যান অসহায় নির্যাতীত মানুষের কাছে।আর্থিক সহযোগিতা ছাড়াও নানান ভাবে সে সাধারণ মানুষকে সহযোগীতা করে থাকেন। তার এ সামাজিক কর্মকান্ডের ফলে অনেক সংগঠন তাকে সন্মাননা দিয়েছেন।অনেক গুণীজনদের হাতে থেকে তিনি সন্মাননা গ্রহন করেছেন। এ দ্বায়িত্ববোধ থেকে মানব কল্যাণে কাজ করে চলছেন দিনরাত। শুধু তাই নয় বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে ধারন করে শেখহাসিনার স্বনির্ভর বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে তিনি সর্বদা দলীয়ভাবেও জড়িত থেকে দলীয় সব নির্দেশনা মেনে দলের হয়ে কাজ করছেন।
করোনা আগমনের বার্তা শুনে তিনি নিজ উদ্যোগে ৬ডেগ পায়েস রান্না করে রোগমুক্তির দোয়া করে সবারমাঝে বিতরন করেন। এছাড়াও তিনি দরিদ্র মানুষের মধ্যে ৫কেজি চাল,পিয়াজ,তেল,সাবান,ডাল সব একএে প্যাকেট করে প্রায় ১০০জন পরিবারের মাঝে বিতরন করেন।
মানবাধীকার কর্মী ফেরদৌসী আক্তার রেহানা সাথে কথা বললে তিনি বলেন, আসলে সরকারের পাশাপাশি আমাদের কে সমাজের মানুষদের জন্য কিছু করা দরকার বলে আমি মনে করি। এ দ্বায়িত্ববোধ থেকে আমি নিজ উদ্যোগে এ সব কাজ করেছি। আমি চাই আমাদের সবারই নিজ নিজ ¯হানে সাধারণ মানুষের পাশে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়া উচিত। আপনারা সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন আমি সবসময় যাতে সমাজের সাধারন মানুষের পাশে থেকে তাদের জন্য কাজ করে যেতে পারি।