নানা আয়োজনে শ্রীপুরে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

আলফাজ সরকার আকাশ,শ্রীপুর(গাজীপুর)ঃ- যথাযোগ্য মর্যাদা ও নানা আয়োজনে গাজীপুরের শ্রীপুরে পালন করা হয়েছে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। শহীদদেও প্রতি শ্রদ্ধা আর ভালোবাসার নিদর্শনস্বরূপ ফুলে ফুলে ভরে ওঠে উপজেলার প্রতিটি শহীদ মিনার প্রাঙ্গণ। গান, কবিতা আবৃত্তি, সাংস্কৃতিক ও আলোচনা অনুষ্ঠানসহ রোববার প্রথম প্রহর থেকে শুরু হয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে দিনব্যাপী চলে নানা আয়োজন।

ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে শনিবার গভীর রাত থেকেই বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ আসতে থাকে শ্রীপুর বীর মুক্তিযোদ্ধা রহমত আলী সরকারি কলেজ চত্বরে অবস্থিত কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে। অমর একুশের প্রথম প্রহরে (রাত ১২টা ১ মিনিটে) উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাসলিমা মোস্তারী বীর মুক্তিযোদ্ধা ও প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে নিয়ে কলেজ চত্বরে অবস্থিত শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে মহান ভাষা আন্দোলনের শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এ সময় অমর একুশের কালজয়ী গান “আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি” বাজানো হয়।

রোববার (২১ ফেব্রুয়ারি) সকালে উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে ভাষা শহীদদের স্মরণে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাসলিমা মোস্তরীর সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শামসুল আলম প্রধান।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ফারজানা নাসরীন, শ্রীপুর পৌর মেয়র আনিছুর রহমান, শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি খোন্দকার ইমাম হোসেন, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নুরুল আমিন, শিক্ষা কর্মকর্তা কামরুল হাসান , মৎস্য কর্মকর্তা আশরাফুল্লাহ, কৃষি কর্মকর্তা মূয়ীদুল হাসান, রেঞ্জ কর্মকর্তা আনিসুল হক, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ প্রণয় ভূষণ দাস,প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোহিতুল ইসলাম, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী সৈয়দ তদবীরুর রহমান, আনসার ভিডিবি কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম, সমাজসেবা কর্মকর্তা মনজুরুল ইসলাম, উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক হামিদুর রহমান, সহকারী উপজেলা প্রকৌশলী মাসুদুর রহমান, উপজেলা আইসিটি কর্মকর্তা নীলুফার ইয়াসমিন, উপজেলা তথ্য কর্মকর্তা মার্জিয়া শেখ, শ্রীপুর সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনিরুল হাছান প্রমূখ।

আলোচনা সভা শেষে কবিতা আবৃত্তি চিত্রাংকন প্রতিযোগীতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরুষ্কার বিতরন ও এক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এছাড়াও উপজেলার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ সামাজিক সংগঠন ও গ্রামগঞ্জে ভাষাশহীদদের স্মরণে নির্মিত শহীদ মিনারগুলোতেও শনিবার মধ্যরাত অর্থাৎ রোববার রাতের প্রথম প্রহরে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে মহান ভাষাশহীদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন শুরু হয়।