দেশে প্রথম পোশাক শ্রমিকদের করোনা টিকাদান শুরু গাজীপুর থেকে

মাজহারুল ইসলাম রবিন,গাজীপুর প্রতিনিধিঃ

করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে গাজীপুরে কারখানার শ্রমিকদের মাঝে করোনা টিকাদান শুরু হয়েছে। প্রথম দিনে চারটি কারখানার ১২ হাজার শ্রমিককে  এই টিকা প্রদান করা হবে। ওই টিকাদান কর্মসূচির মাধ্যমে দেশে প্রথম কারখানার শ্রমিকদের টিকাদান শুরু হলো গাজীপুরের তুসুকা  থেকে।রোববার (১৮ জুলাই) সকাল সাড়ে ১০টায় গাজীপুরের কোনাবাড়ি এলাকার তুসুকা গ্রুপের ,তুষকা ডেনিম ও তুষকা ওয়াশিং কারখানার মিলনায়তনের এই টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

পোশাক শ্রমিক ও কর্মকর্তাদের টিকাদান কর্মসূচি অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন গাজীপুরের সিভিল সার্জন ডা. মোঃ খায়রুজ্জামান। টিকাদান কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব এড. মোঃ জাহাঙ্গীর আলম,বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গাজীপুর জেলা প্রশাসক এসএম তরিকুল ইসলাম,গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার মোঃ জাকির হাসান,বিজিএমইএর সভাপতি ফারুক হোসেন,বিজিএমইএ’র সহ-সভাপতি নাসির উদ্দিন,মার্কস্ অ্যান্ড স্পেনসর হেড অফ কান্ট্রি স্বপ্না ভৌমিক,কেয়ার বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর রামেশ সিং প্রমুখ। এসময় তুসুকা কারখানায় সুপারভাইজার ওবায়দুর হক বলেন‘সহজে টিকা পেয়ে ভালো লাগছে। আমি আগেও চেষ্টা করেছিলাম টিকা দেওয়ার জন্য কিন্তু রেজিস্ট্রেশনের ঝামেলার কারণে টিকা দেওয়া হয়নি।

একই কারখানার শ্রমিক ফাতেমা বলেন‘টিকা দিয়েছি এখন গ্রামের বাড়িতে ঈদ করতে যেতে পারবো আর কোন সমস্যা হবে না। নিজেও সুস্থ থাকবো পরিবারের সবাইকেও সুস্থ রাখতে পারবো। টিকা দেওয়ার জন্য সরকারকে ধন্যবাদ। গাজীপুর সিভিল সার্জন ডা. মো. খায়রুজ্জামান জানান,আজ সকাল থেকে গাজীপুরে ৪ কারখানায় একযোগে পোশাক শ্রমিকদের টিকা দেওয়া কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। প্রথম পর্যায়ে টিকা পাচ্ছেন গাজীপুরের লক্ষিপুরা এলাকার স্পারো এ্যাপারেলস লিমিটেড,ভোগরা এলাকার রোজভ্যালী গার্মেন্টস ও কোনাবাড়ি এলাকার তুসুকা গ্রæপের দুইটি প্রতিষ্ঠান। ওই প্রতিষ্ঠান গুলোতে টিকাদান কর্মসূচি অব্যহত থাকবে।