তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শরীয়তপুর জাজিরায় ব্যাপক সহিংসতা।

মোঃ ফারুক হোসেন, শরীয়তপুর জেলা প্রতিনিধি :
শরীয়তপুর জাজিরায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে, এলাকায় আধিপত্য বিস্তারে আজ  রবিবার (২৫ জুলাই) সকাল ৭ টায় ব্যাপক সহিংসতার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ৩ পুলিশ সদস্যসহ উভয় পক্ষের অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছে। কুপিয়ে তছনছ করা হয়েছে অর্ধশতাধিক ঘরবাড়ি। সরেজমিনে এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, গত শুক্রবার ২৩ জুলাই চরজাজিরা ঈদগা মাঠে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে মোশারফ ব্যাপারীর বাড়ির ছেলেদের সাথে মজিবর ফকির বাড়ির ছেলেদের সাথে কথা কাটাকাটি ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এরপর থেকেই যোগ হয় দুটি গ্রুপে। একটি গ্রুপে নেতৃত্ব দেন সেলিম মাদবর ও মজিবর ফকির, অপর গ্রুপের নেতৃত্বে থাকেন বাবুল মাদবর ও মোশারফ বেপারী। আজ ২৫ জুলাই সকাল সাতটার দিকে মজিবর ফকির ও সেলিম মাদবর গ্রুপ চরজাজিরা থেকে জাজিরা পৌরসভা বাজারে আসতে থাকলে, তাতে বাধা প্রদান করেন বাবুল মাদবর ও মোশারফ ব্যাপারীর লোকজন। এ সময় সেলিম  মাদবরের বাড়িতে বোমা ও ইটপাটকেল ছোড়া হলে। চলে ব্যাপক সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া। এ সময় নিক্ষেপ করা হয় অর্ধশতাধিক ককটেল, বোমা। ভাঙচুর করা হয় ৪০ টিরও অধিক ঘরবাড়ি। সংঘর্ষ চলাকালীন তিন পুলিশ সদস্যসহ উভয় পক্ষের ১৫ জন আহত হয়ে বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ৫ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়েন। ঘটনার বিষয়ে জানার জন্য উভয়পক্ষের নেতৃত্বদানকারী কাউকে পাওয়া যায়নি।
জাজিরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুবুর রহমান জানান, এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ ঘটনা ঘটে। বোমা নিক্ষেপ করা হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ৫ রাউন্ড গুলি ছুড়েছে। তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। সাতজনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে, তাদেরকে রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। এ বিষয়ে মামলা হয়েছে।