ডেঙ্গুর প্রকোপ নিয়ন্ত্রণে আগাম প্রস্তুতি নিন : তাপস

ডেঙ্গুর প্রকোপ যাতে বৃদ্ধি না পায় সেজন্য ডেঙ্গুর প্রকোপ নিয়ন্ত্রণে বর্তমান মেয়রের প্রতি আগাম প্রস্তুতি নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নবনির্বাচিত মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। রোববার বিকেলে রাজধানীর ধানমণ্ডির ৩২নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর তিনি এ আহ্বান জানান।

তাপস ব‌লেন, আজ আমরা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করলাম। আমার সা‌থে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য ও কেন্দ্রীয় নেতারাও ছিলেন। আমি বঙ্গবন্ধুর আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি। নির্বাচনী গেজেট প্রকাশ হয়েছে। আগামী ৩০তারিখের মধ্যেই শপথ গ্রহণ হতে পারে। আমাদের অভিভাবক আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিন নির্ধারণ করে দিবেন শপথ গ্রহণের জন্য।

তি‌নি ব‌লেন, আগামী মে মাস পর্যন্ত বর্তমান মেয়র এর সময় আছে। মে মাসে হয়তোবা দায়িত্বভার পাব। এরই মধ্যে ঢাকাবাসীর জন্য যে প্রতিশ্রুতি আমরা দিয়েছিলাম তার আলোকেই আমরা কাজগুলো বাস্তবায়ন করার জন্য পরিকল্পনা করছি। ঢাকা সিটিতে বড় একটি সমস্যা হলো মশা। জুন মাসে মশার প্র‌কোপ বৃ‌দ্ধি পায়।

আমি চাইছি গতবারের মতো মশার প্রকোপ যেন বৃ‌দ্ধি না‌ পায় সেজন্য আগে থেকেই আমরা কার্যক্রম হাতে নিতে চাই। ঢাকা দক্ষিণের বর্তমান মেয়রের প্রতি আমি অনুরোধ করবো এখন থেকেই যেন মশক নিধনের কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়।

ভোটের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে শনিবার মেয়রদের ডাকা হয়েছিল। সেই ক্ষেত্রে মেয়েদের জবাব জানতে চেয়েছেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটি। সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তাপস বলেন, অনেকগুলো বিষয় উঠে এসেছে।

পর্যালোচনার মধ্যে দিয়ে আমরা আমাদের মতামত বলেছি। জনগণ যে আমাদের স্বতঃস্ফূর্তভাবে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছে এই বিষয় নিয়ে আমরা তাদের সাথে বসেছিলাম। আমরা ভোটারদের উপস্থিতি কম নি‌য়েও পর্যালোচনা করেছি। এখানে অত্যন্ত সুষ্ঠু সুশৃংখলভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। যেটা ওয়েস্টার্ন দেশগুলোতে নির্বাচন হয়ে থাকে।

জনগণ স্বতঃস্ফূর্তভাবে ভোট দিতে পেরেছে জা‌নি‌য়ে তাপস ব‌লেন, এজন্য আমি নির্বাচন কমিশন সহ সকল ভোটার ও সংস্লিষ্টদের ধন্যবাদ জানাই। তাদের উদ্যোগে সুন্দর ও সুষ্ঠু একটি নির্বাচন উপহার পেয়েছি। পশ্চিমা বিশ্বও শান্তিপূর্ণ  নির্বাচনের কথা স্বীকার করেছে।

তারপরও আমাদের সবাইকে একটি বিষয় ভাবিয়ে তুলেছে ভোটার উপস্থিতি কম এখানে বিভিন্ন কারণ গুলো উঠে এসেছে।