চালু হলো দেশের সবচেয়ে বড় করোনা হাসপাতাল

চালু হলো দেশের সবচেয়ে বড় কোভিড-১৯ হাসপাতাল। রাজধানীর বসুন্ধরা কনভেনশন সেন্টারে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এবং বসুন্ধরা গ্রুপের উদ্যোগে এই হাপাতাল নির্মাণ করা হয়েছে। যেখানে করোনা আক্রান্তদের আইসোলেশন সুবিধাসহ রোগীদের জন্য থাকছে আইসিউ সুবিধা।

হাসপাতালটি উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। এসময় তিনি বলেন, স্বাস্থ্যবিধি না মানলে সংক্রমণ আরো বাড়বে। দেশের সর্ববৃহৎ কোভিড হাসপাতালে করোনা রোগীদের আইসিও থেকে শুরু করে আইসোলেশ ইউনিটসহ সব ধরনের সুযোগ সুবিধা থাকছে।

দ্রুত সময়ে মধ্যে প্রস্তুত হওয়া ২০১৩ শয্যার আইসোলেশন ইউনিট এবং ৭১ শয্যার আইসিও সুবিধা রেখে হাসপাতালটি রবিবার ( ১৭ মে) আনুষ্ঠানিক ভাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর করে বসুন্ধরা কর্তৃপক্ষ।

অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, যানবাহন থেকে শুরু করে সব খানে স্বাস্থ্যবিধি না মানার কারণেই বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। তাই আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে আরও কঠোর হওয়ার আহ্বান জানান মন্ত্রী। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, রিকশা, সিএনজি থেকে জটলা করে করোনা ছড়ায়। ফেরিঘাট, দোকানের সামনে জটলা দেখে আমরা আতঙ্কিত হই। কারণ এতে সংক্রমণ বাড়ে। আর বাড়ছেও।

বসুন্ধরার এই হাসপাতালে করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য ৪১ কোটি টাকার বেশি বরাদ্দ করেছে সরকার। এই ধরনের আইসোলেশন ইউনিটে যদি করোনা রোগীদের নিয়ে আশা যায় এবং রোগীর ধরন বুঝে যদি বিভিন্ন ভাগে ভাগ করে চিকিৎসা দেয়া সম্ভব হয়। তাহলে বাসায় থেকে চিকিৎসা না পাওয়ার হার যেমন কমবে একই সাথে কমবে মৃত্যু ঝুঁকি।