চট্টগ্রাম আবাসিক গ্রাহকদের গ্যাস সংযোগ দিন, অন্যথায় বৃহত্তর আন্দোলন

জাহাঙ্গীর আলম বিশেষ প্রতিনিধি :

আবাসিকে গ্যাস সংযোগের দাবিতে চট্টগ্রামে বিভিন্ন কর্মসূচি ঘোষণার মধ্যদিয়ে গতকাল ০৮ জুন মঙ্গলবার রাত ৮ টা থেকে রাত সাড়ে ১০টা পর্যন্ত নগরীর মুরাদপুরস্থ একটি রেষ্টুরেন্টে কেজিডিসিএল ঠিকাদার ও গ্রাহক ঐক্য পরিষদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের সিনিয়র সহ-সভাপতি নেছার আহমদ এর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক এ কে এম অলিউল্লা হক এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় শতশত গ্রাহকদের উপস্থিতিতে বক্তব্য রাখেন কেজিডিসিএল ঠিকাদার ও গ্রাহক ঐক্য পরিষদের সিনিয়র সহ-সভাপতি নেছার আহমদ, সহ-সভাপতি আলহাজ্ব শাহজাহান  সুফি, এম.এ মান্নান খান, সাধারণ সম্পাদক এ.কে.এম অলিউল্লা হক, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মানিক হাওলাদার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ সেলিম হোসেন চৌধুরী।
প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ নাগরিক অধিকার ও পরিবেশ সুরক্ষা আন্দোলন (নাপসা)’র কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান এবং চটগ্রাম গ্যাস-বিদ্যুৎ-পানি গ্রাহক ঐক্যজোটের সভাপতি গ্রাহক আলমগীর নূর। এতে আরও বক্তব্য রাখেন,
আব্দুল হাই, নবী চৌধুরী, আব্দুল মালেক শেখ, এস.এম শাহিন বাবু, প্রশান্ত বড়–য়া, শওকত হোসেন হাওলাদার, হায়দার সিকদার, মোশাররফ হোসেন, রোকশেদ খান, আরঙ্গজেব বাবুল, খোরশেদ আলম, তিতাস গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানী লিঃ এর ঠিকাদার ও গ্রাহকগণের প্রতিনিধি, বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানী লিঃ এর ঠিকাদার ও গ্রাহকগণের প্রতিনিধি, গ্রাহক প্রকৌশলী মফিজুর রহমান, পরিবেশবিদ ইমতিয়াজ আহমেদ।
 মতবিনিময় সভায় কেজিডিসিএল ঠিকাদার ও গ্রাহক ঐক্য পরিষদের সিনিয়র সহ-সভাপতি নেছার আহমদ তাঁর বক্তব্যে বলেন, আবাসিকে গ্রাহকদের গ্যাস সংযোগ থেকে বঞ্চিত করার ক্ষেত্রে একশ্রেণীর দুর্নীতিবাজ সরকারি আমলারা জড়িত। যেখানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চট্টগ্রামের উন্নয়নে আন্তরিক সেখানে কতিপয় আমলারা চট্টগ্রামের সাথে বিমাতা সুলভ আচরণ করছে। তিনি আরও বলেন, আমরা সরকার ও জাতীয় রাজনীতিতে থাকা চট্টগ্রামের সন্তানদের সাথে এব্যাপারে আলাপ করে পরবর্তী পদক্ষেপ নিবো। কেজিডিসিএল ঠিকাদার ও গ্রাহক ঐক্য পরিষদ এর সাধারণ সম্পাদক এ কে এম অলিউল্লা হক তাঁর বক্তব্যে বলেন, ‘গ্যাস সংযোগ পাওয়া আমাদের অধিকার। সরকার শিল্প-কারখানায় গ্যাস দিচ্ছে ঠিক আছে কিন্তু আবাসিকে বন্ধ করে কেন?। ব্যবসায়ী-শিল্পপতিদের গ্যাস পাবার অধিকার আছে, সাধারণ মানুষের অধিকার নেই?।
 গত ৫ বছর আগে টাকা নিয়েও সরকারি গ্যাস কর্তৃপক্ষ আবাসিকে গ্যাস সংযোগ বন্ধ রেখেছে। আবাসিকে গ্যাস সংযোগের জন্য ২৫ হাজার গ্রাহক টাকা জমা দেন। কিন্তু বারবার আশ্বাসের পরও গ্যাস সংযোগ দিচ্ছে না কর্তৃপক্ষ। তিনি বলেন, অবিলম্বে আবাসিকে গ্যাস সংযোগ না দিলে মামলা, অনশন, ধর্মঘটসহ বৃহত্তর আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। সরকার গ্যাস গ্রাহকদের নিকট থেকে টাকা নিয়েও গত ৫ বছর ধরে গ্যাস সংযোগ না দেওয়ায় কর্ণফুলী গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন লিঃ এর দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান এসময় সভায় উপস্থিত ক্ষতিগ্রস্থ বিক্ষুব্ধ গ্রাহকরা।  বিক্ষুব্ধ গ্রাহকের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে উপস্থিত সভার প্রধান বক্তা বাংলাদেশ নাগরিক অধিকার ও পরিবেশ সুরক্ষা আন্দোলন (নাপসা)’র কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান এবং চটগ্রাম গ্যাস-বিদ্যুৎ-পানি গ্রাহক ঐক্যজোটের সভাপতি গ্রাহক আলমগীর নূর গ্রাহক ও ঠিকাদারদের সার্বিক সহযোগিতা করা সহ গ্যাস কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের  দায়িত্ব নিয়ে বলেন, আমরা চট্টগ্রামের ২৫ হাজার গ্রাহকসহ দেশব্যাপী প্রায় ২ লক্ষ আবেদনকারী গ্যাস গ্রাহক ডিমান্ডনোটসহ সরকারী অন্যান্য  সকল খরচাদির টাকা জমা দিয়ে  গত ৫ বছর যাবৎ সংযোগ প্রাপ্তির জন্য অপেক্ষমান। অথচ, সরকার প্রধান জনগণের প্রতি আন্তরিক হওয়া সত্ত্বেও সরকারের উন্নয়ন বিরোধী কুচক্রীমহল অসাধু এলপি গ্যাস এর সিন্ডিকেট ব্যাবসায়ী এবং জ্বালানী মন্ত্রণালয় ও কর্ণফুলী গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিঃ এর দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের  অনৈতিক যোগসাজশে  আবাসিক গ্রাহকদেরকে গ্যাস সংযোগ থেকে বার বার বেআইনিভাবে বঞ্চিত করা হচ্ছে। ফলে চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে লক্ষ লক্ষ আবাসিক পরিবার ও স্থাপনা। অবিলম্বে,  আবাসিক গ্যাস সংযোগ প্রদানের দাবী জানিয়ে তিনি আরও বলেন, চট্টগ্রামের ২৫ হাজার  গ্রাহকসহ দেশব্যাপী ২ লক্ষ গ্রাহকের ন্যায্য ও মানবিক অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে আইনি লড়াই চালাতে আমরা উচ্চ আদালতের দ্বারস্থ হবো। আমরা এদেশের নাগরিক। আমরা সংবিধান সম্মতভাবে আমাদের ন্যায্য দাবী আদায় করে ছাড়বো। মতবিনিময় সভায় দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে আগত  ঠিকাদার ও গ্রাহক কল্যাণ সমিতির নেতৃবৃন্দরা তাদের বক্তব্যে গত ৫ বছর আগে টাকা জমাদানকারী গ্রাহকদের হয়রানি বন্ধ করে অবিলম্বে আবাসিকে গ্যাস সংযোগ চালু করতে সরকারের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানান।