গিনেস বুকে ১১ বছরের সানা, কী তার প্রতিভা!

বয়স মোটে ১১, এরইমধ্যে ক্যালকুলেটর ছাড়া মনে মনে করে ফেললো ১২ ডিজিটের গুণ! যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার এ প্রতিভাধরের নাম সানা হিরেমাথ।

দুই বছর বয়সে অটিজম ধরা পড়ে সানার। ভারতীয় বংশোদ্ভূত প্রিয়া হিরেমাথ যখন তাকে বাসায় পড়ানো শুরু করলেন তখন থেকেই বুঝতে পারেন, মেয়ের ভেতর অংকের প্রতি অন্যরকম একটা টান আছে।

‘আমরা তাকে প্রথম যখন গুণ শেখালাম, তখন থেকেই দেখলাম সে চটপট সব গুণ করে ফেলছে’ বললেন প্রিয়া। বাবা উদয় জানালেন, ‘স্কুলে ভর্তির সময় সানা কিন্তু অংকে ফেল করেছিল। শিক্ষকরা যখন তাকে ১-২০ পর্যন্ত লিখতে বললেন, সে ঠিকমতো পেনসিলই ধরতে পারেনি। কারণ তার হাতের স্নায়ুতে সমস্যা আছে।’

পরে যখন ধীরে ধীরে তার গণিত প্রতিভা ফুটে উঠতে শুরু করে তখনই উদয় আর প্রিয়ার মাথায় আসে, সানার এবার গিনেসের পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার সময় হয়েছে।

১২ ডিজিটের দুটো সংখ্যার গুণ করতে সানা সময় নিয়েছে ১০ মিনিট। এ সময় তার চোখ বাঁধা ছিল। হাতে ছিল না কোনও কাগজ-কলমও। আর তাতেই মনে মনে সবচেয়ে বড় অংকের গুণ করার জন্য রেকর্ডের খাতায় নাম উঠলো তার। সূত্র: স্পেকট্রাম নিউজ।