কর্মীদের ঘরে বসে কাজ করতে বলল টুইটার

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত তিন হাজার ১১৯ জনের মৃত্যু হয়ছে। এ অবস্থায় করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে কর্মীদের ঘরে বসে কাজ করতে বলল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার।

একটি ব্লগ পোস্টে সোশ্যাল মিডিয়া টুইটার বলেছে, এটি হংকংয়ের কর্মীদের জন্য বাধ্যতামূলক। জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ায় কর্মকর্তরাও বাড়িতে থেকে কাজ করবে। ইতিমধ্যে বাসা থেকে কাজ করার সহজ উপায়ও বের করতে কাজ করছে টুইটার। পোস্টের মাধ্যমে আরও জানা যায়, টুইটারে কর্মরত বিশ্বজুড়ে পাঁচ হাজার কর্মীকে কাজে না আসতে ‘উৎসাহিত’ করছে সংস্থাটি।

সবধরনের অপ্রয়োজনীয় ব্যবসা-বাণিজ্য ও ভ্রমণ নিষিদ্ধ করার একদিন পর এ ঘোষণা দিল টুইটার। আয়ারল্যান্ডের ডাবলিনে গুগলের ইউরোপীয় সদর দফতরের কর্মীরা মঙ্গলবার থেকে বাড়িতে পরীক্ষামূলকভাবে কাজ করবে। তবে সংস্থাটির আট হাজার কর্মী বুধবার অফিসে ফিরে আসবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

টুইটারের মানবসম্পদ বিভাগের প্রধান জেনিফার ক্রিস্টি বলেছেন, নিজেদের এবং চারপাশে করোনাভাইরাসের প্রভাব কমিয়ে আনার জন্যই আমাদের এই উদ্যোগ। এর আগে করোনাভাইরাসের কারণে ফেসবুক, গুগলসহ বিভিন্ন শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি সংস্থা তাদের অনেক সম্মেলন স্থগিত ও বাতিল করেছে। বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া এই করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত ৩ হাজার ১২৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।