ওরা সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে শ্রীপুরে চাঁদাবাজি করে!

আলফাজ সরকার আকাশ, শ্রীপুর গাজীপুর থেকেঃ–গাজীপুরের শ্রীপুরে সাংবাদিক পরিচয়ে খাবার হোটেলে চাঁদা দাবী করার সময় স্থানীয়দের সহযোগিতায় পাঁচজনকে আটক করেছে থানা পুলিশ। পরে হোটেল মালিক সাগর খানের দায়ের করা মামলায় তাদের গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে সোপর্দ করা হয়।

সোমবার রাতে পৌর এলাকার মাওনা চৌরাস্তার বাজার রোডের বিসমিল্লাহ হোটেলে চাঁদাবাজির ঘটনায় তাদের আটক করা হয় বলে নিশ্চিত করেছে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ।

আটকৃতরা হলেন, কিশোরগঞ্জ জেলার কটিয়াদী থানার চরআলগী গ্রামের মৃত হযরত আলীর ছেলে মোস্তফা কামাল (৪০),পিরোজপুর জেলার ভান্ডারীয়া থানার মাদারসী বাজার গ্রামের শাহজাহান হাওলাদারের ছেলে মাানিক হাওলাদার (৪৫), গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলার বেলতলী গ্রামের শহীদ মিয়ার ছেলে সোহাগ মিয়া (২০), একই উপজেলার বহেরারচালা গ্রামের ক্বারী আব্দুল আজিজের ছেলে সাব্বির (২০) ও আজুগীরচালা গ্রামের বুলবুল হোসেনের ছেলে জাহিদ হোসেন (১৯)।

হোটেল মালিক সাগর খান ও মামলা সুত্রে জানা যায়, সোমবার সন্ধ্যার পরপর প্রথমে খাবার হোটেলটিতে একজন লোক প্রবেশ করে খাবার দিতে বলে। তার সামনে খাবার দেয়ার পরেই ওই খাবারে ব্যাঙ পাওয়ার অভিযোগ তুলে স্যার বলে ফোন দিলে কয়েকজন সাংবাদিক পরিচয়ে হোটেল প্রবেশ করেন। এসময় তারা দোকানের ভিডিও ধারণ সহ ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার ভয় দেখিয়ে ৫০ হাজার টাকা দাবি করেন। হোটেল মালিক ভয়ে ১০ হাজার টাকা তাদের হাতে তুলে দেয়ার এক পর্যায়ে সেখানে স্থানীয় সাংবাদিক জামাল উদ্দিনসহ কয়েকজন প্রবেশ করলে অবস্থা বেগতিক দেখে ঘটনার মুল হোতা মোস্তফা কামালসহ অন্যরা পালিয়ে যায়। এসময় স্থানীয়রা জাহিদ এবং সাব্বির নামে দুজনকে আটক করে পুলিশে দেয়।

এ বিষয়ে শ্রীপুর থানার ওসি  (ভারপ্রাপ্ত) মনিরুজ্জামান খান জানান, আটক দুজনকে থানা থেকে সাংবাদিক পরিচয়ে ছাড়িয়ে নিতে গেলে হোটেল মালিকের অভিযোগের ভিত্তিতে মোস্তফাসহ ‍তিনজনকে আটক করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে একটি নোয়া গাড়ি, একটি ভিডিও ক্যামেরা ও একাধিক মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়।

তিনি আরও জানান, আটককৃতদের সাথে সিএন এন বাংলা টিভি, ৭১ বাংলা টিভি, তারা টিভির পরিচয়পত্র ছিল। পরে হোটেল মালিকের দায়ের করা মামলায় তাদেরকে মঙ্গলবার দুপুরে আদালতে সোপর্দ করা হয়।