আল্লামা সরোয়ার সাঈদীর জানাজা ও দাফন সম্পন্ন, আইনমন্ত্রীর শোক

প্রখ্যাত মুফাসসির, গবেষক, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবার আড়াইবাড়ী কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ ও আড়াইবাড়ী দরবার শরিফের পীর আল্লামা গোলাম সারোয়ার সাঈদীর জানাজা ও দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

জানাজায় অংশ নেন দেশবরেণ্য ওলামা, পীর মাশায়েখ, বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও শ্রেণী-পেশার মানুষ। বাদ আসর আড়াইবাড়ী কামিল মাদরাসা মাঠে মরহুমের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজা শেষে দরবার শরীফ মসজিদ সংলগ্ন পিতা ও দাদার কবরের পাশে তার লাশ দাফন করা হয়।

এর আগে দুপুর সাড়ে ১২টায় মরহুমের লাশ ঢাকা থেকে কসবা আড়াইবাড়ী পৌঁছে। এসময় লাশবাহী গাড়ি মরহুমের প্রিয় ক্যাম্পাস মাদরাসা মাঠে রাখা হয়। এক নজর দেখতে ভীড় জমায় হাজার হাজার ভক্ত ও মুসল্লীরা। এসময় শোকাহত তাওহীদী জনতার আল্লাহু আকবর ধ্বনি ও কান্নায় এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়।

জানাজায় ইমামতি করেন মরহুমের বড় ছেলে হাফেজ হাফেজ মাওলানা আব্দুস সোবহান। জানাজাপূর্ব বক্তব্য রাখেন সোনাকান্দার পীর মাওলানা মাহমুদুল হাসান, নাগাইশের পীর মাওলানা মোস্তাক ফয়েজী, কসবা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাড. রাশেদুল কাউছার জীবন ও কসবা পৌর মেয়র এমরান উদ্দিন জুয়েল প্রমুখ।

তার আকষ্মিক অকাল মৃত্যুতে (ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪) কসবা-আখাউড়ার সংসদ সদস্য আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করেন। গোলাম সারোয়ার সাঈদী এদেশের প্রখ্যাত বুজুর্গানে আলেমে দ্বীন সৈয়দ আজগর আহাম্মদের দৌহিত্র ও মাওলানা গোলাম হাক্কানী পীর সাহেবের ছেলে ছিলেন।