আফ্রিদি টেস্টের জন্য আদর্শ ক্রিকেটার ছিলেন: শোয়েব

দীর্ঘদিন ধরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলেছেন শহীদ আফ্রিদি। ব্যাট-বল হাতে দেখিয়েছেন জাদু। তবে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতে তার রেকর্ড-পরিসংখ্যান যতটা ভালো, টেস্ট ক্রিকেটে নিজেকে সেভাবে মেলে ধরতে পারেননি তিনি।

মাত্র ২৭ টেস্ট খেলেই সাদা পোশাককে বিদায় বলে দেন ‘বুমবুম’ খ্যাত আফ্রিদি। পাকিস্তানের হয়ে ৩৯৮টি ওডিআই ও ৯৯টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন আফ্রিদি।

সার্বিক বিচারে তার টেস্ট ক্যারিয়ার আরও লম্বা হতে পারতো বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির সাবেক স্পিডস্টার শোয়েব আখতার। পাকিস্তানের একটি স্পোর্টস চ্যানেলে সম্প্রতি তিনি বলেন, আদর্শ টেস্ট ক্রিকেটার হওয়ার সব গুণাবলী ছিল আফ্রিদির মধ্যে।

শোয়েব বলেন, আমি সবসময় আফ্রিদিকে বলেছি, ওয়ানডের তুলনায় তুমি টেস্টে অনেক ভালো। আমি সর্বদা বিশ্বাস করেছি, সে ব্যাটসম্যানের তুলনায় অনেক ভালো বোলার ছিল।

২০০৬ সালে টেস্ট থেকে সাময়িক অবসর নেন আফ্রিদি। ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতে সম্পূর্ণ মনোযোগ দিতে এ সিদ্ধান্ত নেন তিনি। চার বছর পর অধিনায়ক হয়ে টেস্টে ফেরেন এ অলরাউন্ডার। কিন্তু দ্বিতীয় দফায় শুরুর দুই ম্যাচ ভালো করতে না পারায় আবার ক্রিকেটের অভিজাত সংস্করণকে বিদায় বলে দেন।

শুধু শোয়েব না, আফ্রিদিকে টেস্ট না ছাড়ার পরামর্শ দিয়েছিলেন সাবেক পাক উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান রশিদ লতিফও। তবে তার উপদেশও কানে নেননি তিনি। ২০১০ সালে বিদায়ের আগে এই ডানহাতি ক্রিকেটার ২৭ টেস্টে ১৭১৬ রান করেন তিনি। পাশাপাশি ৪৮ উইকেট শিকার করেন।

তথ্যসূত্র: ক্রিকেট পাকিস্তান ডটকম